Take a fresh look at your lifestyle.

একবছর পর মুক্তি পেলো ৯ ছাগল

১১৫

গোরস্থানে ঢুকে ঘাস ও লতাপাতা খাওয়ার অভিযোগে প্রায় ১ বছর আটকে রাখার পর ৯টি ছাগলকে মুক্তি দিয়েছে বরিশাল সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ।

বৃহস্পতিবার (২৩ নভেম্বর) মালিক রাজিব শাহারিয়ারের কাছে ছাগলগুলোর হস্তান্তর করেন সিটি করপোরেশনের প্রশাসনিক কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন।

রাজিব নগরের ২১ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা এবং ওই ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন।

এরআগে, গত বছরের ৬ ডিসেম্বর বরিশাল মুসলিম গোরস্থানে প্রবেশের অভিযোগে ছাগলগুলো আটক করে সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ। তবে রাজিবের অভিযোগ, সিটি করপোরেশন ১৫টি ছাগল আটক করলেও ফেরত দিয়েছে মাত্র ৯টি।

ছাগল ফেরত পাওয়ার বিষয়ে রাজিব শাহরিয়ার বলেন, ২০২২ সালের ৬ ডিসেম্বর অসাবধানতাবশত আমার খামারের ছাগলগুলো গোরস্থানে ঢুকে ঘাস ও লতাপাতা খায়। খবর পেয়ে সিটি করপোরেশনের তৎকালীন প্রশাসনিক কর্মকর্তা স্বপন কুমার দাসের নির্দেশে আমার ১৫টি ছাগল আটক করে নিয়ে যায়। ছাগলগুলো ফিরে পেতে সিটি করপোরেশনে দফায় দফায় আবেদন করলেও সাদিক আব্দুল্লাহর ওই পরিষদ ফেরত দেয়নি।

রাজিব অভিযোগ করে বলেন,  নিয়ম ভেঙে উদ্দেশ্যমূলক আমার খামারের ছাগলগুলো প্রায় এক বছর আটকে রাখা হয়।

তিনি বলেন, তখন মোট ১৫টি ছাগল আটক করেছিল। পরে আমি জানতে পারি এই এক বছরে ছাগলগুলো ৯টি বাচ্চা দিয়েছে। ফলে মোট ছাগলের সংখ্যা দাঁড়ায় ২৪টিতে। কিন্তু গতকাল আমার কাছে ছাগল দেওয়া হয়েছে মাত্র ৯টি। বাকি ছাগল বিষয়ে জানতে চাইলে দায়িত্বরত কর্মকর্তা জানিয়েছেন সেগুলো মারা গেছে।

রাজিব বলেন, আমি আমার প্রত্যেকটি ছাগল ফেরত চাই। আমার সঙ্গে অন্যায় করা হয়েছে। আমি এর বিচার চাই। এ বিষয়ে সিটি করপোরেশনের বর্তমান মেয়রের কাছে ন্যায় বিচার কামনা করছি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.