Take a fresh look at your lifestyle.

আজকের তরুণরা হবে স্মার্ট বাংলাদেশের কর্ণধার

১০১

শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার দিকে মনোযোগী হওয়ার আহ্বান জানিয়ে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে দরিদ্র দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশের কাতারে নিয়ে এসেছেন। ২০৪১ সালে সমৃদ্ধশালী স্মার্ট বাংলাদেশে পৌঁছানোর লক্ষ্যে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

তখন আমরা হয়তো থাকবো না। কিন্তু আজ যারা তরুণ প্রজন্ম আছো, তোমরাই হবে সেই ২০৪১ সালে স্মার্ট বাংলাদেশের কর্ণধার। এজন্য তোমাদের এখন থেকেই প্রস্তুতি নিতে হবে।  

 

রোববার (১২ ফেব্রুয়ারি) সকালে বরিশাল জিলা স্কুলের ১৭০তম বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, তোমাদের লেখাপড়া করতে হবে, শারীরিকভাবে সুস্থ থাকতে হবে। তোমাদের ভবিষ্যতের জন্য এখন থেকেই গঠনমূলক কর্মকাণ্ড করতে হবে। তোমরা যদি সততা, আন্তরিকতা ও নিষ্ঠার সঙ্গে নিজেদের যদি গড়ে তুলতে পারো, তাহলেই তোমরা ভবিষ্যতে বাংলাদেশের কর্ণধার হতে পারবে।

তিনি আরও বলেন, কোনো দেশের নাগরিক বা মানুষ শারীরিকভাবে সুস্থ না হতে পারলে সে দেশ কখনও সমৃদ্ধ লাভ করতে পারে না। জাতির পিতা স্বপ্ন দেখেছিলেন বাংলাদেশকে সোনার বাংলা গড়ার। কিন্তু আমরা জনসাধারণ যদি শারীরিকভাবে যোগ্যতা অর্জন করতে না পারি তাহলে এটা সোনার বাংলা হবে না, রুগ্ন বাংলা হবে। সুতরাং সোনার বাংলা গড়তে হলে আমাদের প্রতিটি নাগরিককে শরীরের দিকে নজর দিতে হবে। আর এজন্যই সরকার খেলাধুলার দিকে নজর দিয়েছে।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমার দৃঢ় বিশ্বাস ও আমরা আশা করবো এখনকার শিক্ষার্থীরা লেখাপড়ার সঙ্গে খেলাধুলার প্রতিও মনোযোগী হবে। একজন শিক্ষার্থী লেখাপড়ার সঙ্গে খেলাধুলায় মনোযোগী হলে তারা অন্যান্য খারাপ কাজ থেকে নিজেকে দূরে রাখতে পারবে।

বরিশাল জিলা স্কুলের প্রধান শিক্ষক পাপিয়া জেসমিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বরিশাল আঞ্চলিক উপ-পরিচালক মো. আনোয়ার হোসেন, বরিশাল শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. শহিদুল ইসলাম, বরিশাল জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট লষ্কর নুরুল হক, বরিশাল বিএম কলেজ বাকসুর সাবেক ভিপি মো. মঈন তুষার, বরিশাল মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জসিম উদ্দিনসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা-কর্মী।

Leave A Reply

Your email address will not be published.