Take a fresh look at your lifestyle.

সোনারগাঁও টেক্সটাইল শ্রমিক-কর্মচারী পরিষদের ৬ দাবি

৯৯

বকেয়া বেতন পরিশোধসহ ৬ দফা দাবিতে সোনারগাঁও টেক্সটাইল শ্রমিক-কর্মচারী সংগ্রাম পরিষদ সংবাদ সম্মেলন করেছে।

শুক্রবার (২৬ জানুয়ারি) বেলা ১১টায় বরিশাল নগরের ফকিরবাড়ি রোডস্থ বাসদের জেলা কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সংগঠনের সভাপতি মাসুম গাজীর সভাপতিত্বে সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সোনারগাঁও টেক্সটাইল লি. শ্রমিক-কর্মচারী সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি মাসুম গাজী, সাধারণ সম্পাদক মো. ইমরান, কোষাধ্যক্ষ মোশারেফ হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক খুকুমনি, ইউনিয়নের উপদেষ্টা ও বাসদ বরিশাল জেলা শাখার সদস্য দুলাল মল্লিক, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট বরিশাল জেলা শাখার দপ্তর সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট বরিশাল জেলা শাখার সভাপতি বিজন শিকদার প্রমুখ।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা ৬ দফা দাবিগুলো তুলে ধরেন। দাবিগুলো হলো—প্রতিশ্রুতি মোতাবেক মূল বেতনের বৃদ্ধিকৃত ২৫ শতাংশের বকেয়া ১৫ শতাংশ বেতন পরিশোধ করা; যুগোপযোগী বেতনস্কেল চালু করা ও অবিলম্বে বার্ষিক ইনক্রিমেন্ট দেওয়া; ছুটি দেওয়া নিয়ে অনিয়ম দূর করা ও অর্জিত ছুটির মজুরির হিসাব বছরান্তে পরিশোধ করা; কোম্পানির লভ্যাংশে শ্রমিকের অংশ বেতনের সাথে পরিশোধ করা; প্রতি শিফটে ৮ ঘণ্টা ডিউটি, ওভারটাইমে মূল বেতনের দ্বিগুণ মজুরি প্রদান করা এবং সব শিফটে নাস্তার ব্যবস্থা করা; অব্যাহতি প্রদান করলে বা স্বেচ্ছায় অবসরে গেলে শ্রম আইন অনুযায়ী শ্রমিক কর্মচারীদের সমুদয় পাওনাদি পরিশোধ করা।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে নেতৃবৃন্দ বলেন, আমরা সোনারগাঁও টেক্সটাইলের শ্রমিক-কর্মচারীদের অধিকার আদায়ে দীর্ঘদিন ধরে লড়াই-সংগ্রাম করে আসছি। ২০২০ সালের মার্চ মাসে হঠাৎ করে মালিক কারখানা বন্ধ করে দেয়, যার পর ১১ মাস শ্রমিকরা ধারাবাহিকভাবে আন্দোলন করার পর মালিক কারখানা পুনরায় চালু করতে বাধ্য হয়। ২০২১ সালে পুলিশ প্রশাসন ও জেলা প্রশাসনের প্রতিনিধিবৃন্দসহ আন্দোলনকারীদের সাথে বৈঠকে মালিকপক্ষ শ্রমিকদের ৬ দফা দাবি মেনে কারখানা চালু করে।

এই ৬ দফার মধ্যে অন্যতম ছিল ৯ মাসের বকেয়া বেতন পরিশোধ, ২০১৮ সালের গেজেটঘোষিত বেতনস্কেল চালু করা, ৮ ঘণ্টা কর্মঘন্টা চালু করা, শ্রমিক ইউনিয়ন গঠনের কার্যক্রমে সহায়তা করা ইত্যাদি। এরমধ্যে ৯ মাসের বকেয়া বেতন ৪৫ কিস্তিতে পরিশোধের প্রক্রিয়া শুরু করেও বেতনের ১৫% পরিশোধ করা শেষে বাকি ১০% পরিশোধ করা নিয়ে মালিক গতবছর থেকেই টালবাহানা শুরু করেছে। ২০২৩ সালের মধ্যে ৯ মাসের বকেয়া বেতন সমুদয় পরিশোধ করার কথা থাকলেও মালিক বকেয়া বেতনের ১০% পরিশোধ করেননি এবং সেটা কবে পরিশোধ করবেন তাও সুস্পষ্টভাবে কিছু বলেননি।

বক্তারা বলেন, ন্যায্য দাবি আদায়ে আগামী ৩১ জানুয়ারি সোনারগাঁও টেক্সটাইল মিলগেটে মানববন্ধন এবং ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে আমাদের দাবি মানার ঘোষণা না আসলে সড়কে অবস্থান কর্মসূচি ঘোষণা করছি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.