Take a fresh look at your lifestyle.

মানুষের কল্যাণে কাজ করতে স্বতন্ত্রদের নির্দেশ

১৩৫

বাংলাদেশের ইতিহাস জেনে সংবিধান আত্মস্থ করতে স্বতন্ত্র এমপিদের আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রোববার (২৮ জানুয়ারি) দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী স্বতন্ত্র সংসদ সদস্যদের সঙ্গে বৈঠকের সূচনা বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী এ আহ্বান জানান।

স্বতন্ত্রদের প্রতি প্রধানমন্ত্রী বলেন, আপনাদের সংসদের কার্যপ্রণালিবিধি পড়তে হবে। জনপ্রতিনিধি হিসেবে মানুষের কল্যাণ নিশ্চিত করতে হবে৷

এ সময় স্বতন্ত্র সংসদ সদস্যদের নির্বাচনী এলাকায় ভূমিহীন-গৃহহীন থাকলে সে সব তথ্য জানানোর নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী। তাদের জন্য ঘর তৈরি করে দেয়ারও অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন তিনি।

রাজনৈতিক স্থিতিশীলতার প্রয়োজনীয়তার কথা উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, অগ্নিসন্ত্রাসের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স অব্যাহত থাকবে। যে সব প্রকল্প দেশের মানুষের জন্য অর্থবহ সে সব প্রকল্পই নেয়া হবে।

দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দেয়া হবে না জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের মানুষের জন্য যেসব প্রকল্প অর্থবহ সেসব প্রকল্পই গ্রহণ করা হয়। এবার জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নির্বাচিত স্বতন্ত্র এমপিদের নির্বাচনী এলাকায় যদি কেউ ভূমিহীন, গৃহহীন থাকেন, তাদের জন্য ঘর তৈরি করে দেওয়া হবে।

স্বতন্ত্র এমপিদের উদ্দেশ্যে শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশের ইতিহাস জানতে হবে, সংবিধান আত্মস্থ করতে হবে। সেই সঙ্গে সংসদ কার্যপ্রণালী বিধি পড়তে হবে। আমাদের ওয়েস্ট মিনিস্টার টাইপ পার্লামেন্ট সংসদ, এজন্য সংসদ প্র্যাকটিস ভালো করে জানতে হবে।

তিনি বলেন, অগ্নি সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স অব্যাহত থাকবে।

এদিকে গণভবনে যাওয়া স্বতন্ত্রদের মধ্যে বেশিরভাগই সরকারের সঙ্গে থাকতে চান বলে জানিয়েছেন কয়েকজন এমপি।

বৈঠকে আসা এমপি মহিউদ্দিন মহারাজ (পিরোজপুর-২) জানান, আজকের বৈঠক থেকে দলীয় সভাপতি যে সিদ্ধান্ত দেবেন, তাই-ই মেনে নেবেন স্বতন্ত্র এমপিরা।

আলাদা কোনো জোট গঠন হবে কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, স্বতন্ত্রদের আলাদা জোট গঠনের পরিকল্পনা এখন পর্যন্ত নেই। তবে, অধিকাংশ স্বতন্ত্র সংসদ সদস্যই আওয়ামী লীগের সঙ্গেই থাকতে চান।

একই কথা জানান আরেক স্বতন্ত্র এমপি কামারুল আরেফিন (কুষ্টিয়া-২)।

এদিন সন্ধ্যা ৬টা ৪৪ মিনিটে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে বৈঠকটি শুরু হয়। বৈঠকের সঞ্চালনা করেন চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী।

উল্লেখ্য, গত ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ২২৩টি আসন পেয়ে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করে। এছাড়া জাতীয় পার্টি ১১টি এবং ওয়ার্কার্স পার্টি, জাসদ ও কল্যাণ পার্টি একটি করে আসনে জয়লাভ করেছে। এর বাইরে এবার ৬২ জন স্বতন্ত্র প্রার্থী নির্বাচনে জিতেছেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.