Take a fresh look at your lifestyle.

পাতানো নির্বাচনে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ যাবে না বলে ঘোষণা

১২০

পাতানো নির্বাচনে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ যাবে না বলে ঘোষণা দিয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর ও চরমোনাই মাওলানা মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম। এই সরকার যদি পাতানো নির্বাচন করে তাহলে ভোট দিতে ভোট কেন্দ্রে না যাওয়ার জন্য উপস্থিত মুসল্লিদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

চরমোনাই মাহফিলের দ্বিতীয় দিন বৃহস্পতিবার সকালে জাতীয় ওলামা-মাশায়েখ সম্মেলনে সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। চরমোনাই পীর বলেন, ২০১৪ আর ২০১৮ সালে দেখেছি দলীয় সরকারের অধিনে কোন নির্বাচন হয়নি। ওই নির্বাচন সাজানো, প্রহসন, ধোঁকাবাজি ছাড়া আর কিছুই নয়। তারা ক্ষমতায় থেকে ২৪ সালে একটা ফেয়ার নির্বাচন করবে এটা হতেই পারে না। আমরা স্পষ্ট ঘোষণা করছি এই পাতানো নির্বাচনে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ যাবে না।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ আমীর আওয়ামী লীগের শাসনামলে বাংলাদেশের পাসপোর্ট থেকে ‘এক্সসেপ্ট ইসরায়েল’ উঠিয়ে দেয়ার প্রতিবাদ করে বলেন, এই সরকার ইসরায়েলের সাথে সম্পর্ক স্থাপনের চেষ্টা করে যাচ্ছে। অন্যদিকে তারাই অন্যদের ফিলিস্তিনের পক্ষে কথা বলা নিয়ে সমালোচনা করছে। যা খুবই হাস্যকর।

সম্মেলনে আরও বক্তব্য রাখেন প্রেসিডিয়াম সদস্য মাওলানা সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল-মাদানী, মহাসচিব অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, যুগ্ম মহাসচিব আলহাজ্ব আমিনুল ইসলাম, মাওলানা গাজী আতাউর রহমান, ইঞ্জিনিয়ার আশরাফুল আলম, সহকারী মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর উত্তর সভাপতি হাফেজ মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ সভাপতি মাওলানা মুহাম্মাদ ইমতিয়াজ আলম, ঢাকার জামিয়া ইসলামিয়া মদিনাতুল উলুম তিলপাড়ার মুহাতামীম মাওলানা ইউনুছ ঢালী, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের কেন্দ্রিয় সাংগঠনিক সম্পাদক কেএম আতিকুর রহমানসহ কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতারা।

আগামীকাল শুক্রবার সকাল ১০টায় মাহফিলে সারাদেশ থেকে আসা ছাত্রদের নিয়ে ইসলামী ছাত্র আন্দোলনের ছাত্র সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। একই দিন শুক্রবার চরমোনাই ময়দানে দেশের সর্ববৃহৎ জুমার জায়ামাত অনুষ্ঠিত হবে। আগামীকাল শনিবার সকাল ৮টায় আখেরী বয়ান এবং মোনাজাতের মাধ্যমে এবারের শততম বর্ষের মাহফিল সমাপ্ত হবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.