Take a fresh look at your lifestyle.

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ডিইউসিএসের আয়োজনে তথ্যচিত্র প্রদর্শন

২১৯

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সাংস্কৃতিক সংসদের আয়োজনে প্রামাণ্য তথ্যচিত্র প্রদর্শন অনুষ্ঠিত  হয়েছে।

শুক্রবার ৯ ফেব্রুয়ারি সকাল ১০ টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আর সি মজুমদার অডিটোরিয়ামে স্পৃহা ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক সংসদের আয়োজনে প্রদর্শিত হয়েছে প্রামাণ্য তথ্যচিত্র“Unveiling the Tapestry: An Exclusive Screening of Threads.”.।

তথ্যচিত্রটির মধ্য দিয়ে উঠে এসেছে ঐতিহ্যবাহী নকশী কাঁথা শিল্পের বিকাশ এবং উক্ত শিল্পে শিল্পী সুরাইয়া রহমানের অবদান। একজন নারী শিল্পীর পথচলার নানা প্রতিবন্ধকতা এবং সেসব উত্তরণের গল্প দর্শকদের সামনে তুলে ধরা হয়েছে। কিশোরীদের অনুপ্রাণিত ও স্বাবলম্বী হতে উৎসাহিত করাই এ আয়োজনের মূল লক্ষ্য। নির্দেশক ও প্রযোজক ক্যাথি স্টেভ্যুলাক বলেন, “এই তথ্যচিত্রটি আমি যতবার দেখি, আবেগাপ্লুত হয়ে যাই। স্পৃহা ফাউন্ডেশনের কাজ সম্পর্কে আমি শুরু থেকেই জানি। আমি ধন্যবাদ জানাতে চাই স্পৃহা ফাউন্ডেশন এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক সংসদকে তাদের স্বতস্ফূর্ত অংশগ্রহণ ও সহযোগিতার জন্য।

স্পৃহা ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী নির্দেশক তাজিন শাহদাদ বলেন “১০ বছর আগে যখন আমরা স্পৃহা শুরু করি, তখন আমাদের একটি বড় স্বপ্ন ছিল সাধারণ মানুষের জীবন সহজ করে তোলা, খেটে খাওয়া মানুষ ও নারীর ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করতে অবদান রাখা৷ আজ এই আয়োজনে আমাদের মেয়েদের উপস্থিতিই প্রমাণ করে যে আমরা ধীরে ধীরে আমাদের সেই স্বপ্নের দিকে এগিয়ে যাচ্ছি। এ আয়োজনে আমাদের সহযোগিতা করার জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক সংসদকে অনেক ধন্যবাদ।’’
ডিইউসিএসের সভাপতি দেবজ্যোতি বিশ্বাস বলেন, “ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক সংসদ বাংলা সংস্কৃতির ঐতিহ্যকে লালন এবং ধারণ করায় বিশ্বাসী। নকশি কাঁথা আমাদের ঐতিহ্য। স্পৃহা ফাউন্ডেশনের এই উদ্যোগকে আমরা সাধুবাদ জানাই।

ডিইউসিএসের সাধারণ সম্পাদক কে এম তানভীরুল হক বলেন “ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক সংসদ যেমন বাংলা সংস্কৃতিকে নিয়ে কাজ করে, একই সাথে আমরা নারীর ক্ষমতায়নেও বিশ্বাসী। স্পৃহা ফাউন্ডেশনের এই উদ্যোগের সাথে আমরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক সংসদ সবসময় আছি।’’

স্পৃহা ফাউন্ডেশনের হেড অফ গ্রোথ হালিমা তুস সাদিয়া বলেন “আমরা চাই আমাদের মেয়েরা সমস্ত প্রতিকূলতা পার হয়ে এগিয়ে যাক এবং নিজেদের সমৃদ্ধ করুক।’’

Leave A Reply

Your email address will not be published.